পিরোজপুর-১

উন্নয়ন কাজে সবাই সমান সুযোগ পাবেন: রেজাউল করিম

প্রকাশ | ০২ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৩:৪২

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পিরোজপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আইন সম্পাদক শ ম রেজাউল করিম বলেছেন,  ‘পিরোজপুরে এ পর্যন্ত যে পরিমাণ বরাদ্দ এসেছে সেই পরিমাণ উন্নয়ন হয় নাই। বরাদ্দ হওয়া সেই টাকাগুলো কয়েনে রপান্তরিত করে সেই কয়েন দিয়ে অনেক কিছু করা যেতো। আপনাদের সবার সহযোগিতায় আমি পিরোজপুর জেলাকে একটি আধুনিক ও উন্নত জেলায় পরিণত করব। সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে এলাকার উন্নয়নে কাজ করবো। পিরোজপুরের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনবো।’

শনিবার (১ ডিসেম্বর) পিরোজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, ‘আমি নির্বাচিত হলে কোনও দুর্নীতি করব না। সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দিব না। নিয়োগ ও টেন্ডারে আমার পক্ষ থেকে কোনও বাণিজ্য হবে না। উন্নয়ন কাজে সবাই সমান সুযোগ পাবেন।’

তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতা বিরোধী প্রতিক্রিয়াশীলরা দেশের জন্য ক্ষতিকর, তাদেরকে মোকাবেলা করতে হবে। আমি আহ্বান জানাবো সেই মোকাবেলার সংগ্রামে আপনারা সচেতন নাগরিক হিসেবে সবাই শামিল হবেন। আবার যদি সাঈদীর পুত্র পিরোজপুর-১ আসনে এমপি হয় তাহলে শহীদদের আত্মা কষ্ট পাবে। তবে আমার বিশ্বাস সাঈদীর পুত্রকে পিরোজপুরের মানুষ গ্রহণ করবে না। স্বাধীনতার স্বপক্ষের মানুষদের এদের বিষয়ে রুখে দাড়ানো উচিত।’

শ ম রেজাউল করিম বলেন, এটা আমাদের জন্য দূর্ভাগ্য যে ক্ষমতাসীন দলের একজন এমপি হয়ে স্বাধীনতার স্বপক্ষের কয়েকজন কলম সৈনিকের বিরুদ্ধে নিজে বাদী হয়ে ফৌজদারি মামলা দিয়ে জেল খাটানোর চেষ্টা করেছেন। এটা কল্পনা করতেও আমার হৃদয়ে রক্ষক্ষরণ হয়। কারণ আমিও একজন সাংবাদিক ছিলাম এবং এই পিরোজপুর প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য। আমি নৈতিক ও মানবিক কারণে মামলাগ্রস্থ সাংবাদিকদের স্বপক্ষে আইনি ভাবে লড়েছি।

পিরোজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিউল হক মিঠুর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাজাহান খান তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ হাকিম হাওলাদার, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হোসেন, মুনিরুজ্জামান নাসিম আলী, এস এম পারভেজ, এ কে আজাদ, ফসিউল ইসলাম বাচ্চু, শিরিনা আফরোজ।